You are here: Home » লেখা-পড়া » মায়ের চরণ নিজ হাতে করি প্রক্ষালন

মায়ের চরণ নিজ হাতে করি প্রক্ষালন 

SHURDI-PIC-SCHOOL-2

ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৭

জনমত.কম।।

ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ‘মা-বাবার প্রতি সন্তানের ভক্তি-শ্রদ্ধা’ শীর্ষক কর্মসূচিতে মায়ের পা ধুয়ে দিচ্ছে শিক্ষার্থীরা। ছবি: মাহাবুবুল হকমায়ের পায়ে পানি ঢেলে তা ধুয়ে দিচ্ছে সন্তান। তারপর মুছে দিচ্ছে মায়ের পা। এরপর মায়ের মুখে তুলে দিচ্ছে মিষ্টি। সন্তানের এই ভক্তিতে মায়ের চোখ বেয়ে পানি নেমে আসে। এ দৃশ্য পাবনার ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের।

সোমবার দুপুরে ‘মা-বাবার প্রতি সন্তানের ভক্তি-শ্রদ্ধা’ শীর্ষক এক কর্মসূচিতে এভাবেই মাকে সম্মান জানানো হয়। এতে প্রায় ৫০০ শিক্ষার্থী ও তাদের মায়েরা অংশ নেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, দুপুরে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চত্বরে শিক্ষার্থীদের মায়েরা জড়ো হন। ওই কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন কর্মসূচির উদ্যোক্তা ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাকিল মাহমুদ। তাঁর বক্তব্যের পরপরই মায়েরা নির্দিষ্ট আসনে বসে পড়েন। এরপর শিক্ষার্থীরা পানি ঢেলে নিজ নিজ মায়ের পা ধুয়ে তোয়ালে দিয়ে পা মুছে দেয়। এরপর শিক্ষার্থীরা মায়ের কপালে চুমু দিয়ে তাঁদের মুখে মিষ্টি ও শিঙাড়া তুলে দেয়। এ সময় অনেক মা সন্তানকে জড়িয়ে ধরে আনন্দে কেঁদে ফেলেন।

মা নিলুফার ইয়াসমিন বলেন, সন্তানেরা আজ যে শিক্ষা পেল, তা আগামী প্রজন্মের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।

ঈশ্বরদী ব্যাপ্টিস্ট মিশন হোমের ‘মা’ অন্তরা বিশ্বাস কেঁদে বলেন, ‘আমার সন্তান নেই। তবুও হোমের মা হিসেবে ওরা আমাকে যে সেবা ও সম্মান করেছে, তা আমার জন্য পরম পাওয়া।’
ইউএনও বলেন, অনুকরণীয় এ কর্মসূচি ঈশ্বরদী উপজেলার সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পর্যায়ক্রমে পালনের জন্য তিনি নিজে এই উদ্যোগ নিয়েছেন। কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আসলাম হোসেন। আসলাম হোসেন বলেন, মা-বাবা ও পরিবারের গুরুজনদের প্রতি কর্তব্য, ভালোবাসা ও চেতনা জাগানোর জন্য ইউএনওর উদ্যোগে এ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

কর্মসূচিতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম আকতার। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বজলুর রশিদ, সাপ্তাহিক জনদৃষ্টি সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ। প্রথম আলো

Add a Comment